স্বাস্থ্যকথা
আজ স্তন ক্যানসার সচেতনতা দিবস
স্বপ্না দেবনাথ :
Published : Tuesday, 10 October, 2017 at 2:31 AM, Update: 09.10.2017 10:32:58 PM
আজ স্তন ক্যানসার সচেতনতা দিবসআজ ১০ অক্টোবর স্তন ক্যানসার সচেতনতা দিবস। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন স্তন ক্যান্সারের বিভিন্ন ঝুঁকি সম্পর্কে সচেতন হলে এ রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব। তাই স্তন ক্যান্সার সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে এবং রোগী শনাক্তকরণ প্রক্রিয়া আরো বেগবান করতে কমিউনিটি ক্লিনিককে সম্পৃক্তকরণ এবং রাষ্ট্রীয় নীতিমালা তৈরি করা প্রয়োজন। কেননা সারা বিশ্বের মত বাংলাদেশেও দূরারোগ্য ব্যাধি  স্তন ক্যান্সারে আক্রান্তের হার দিন দিন বেড়েই চলছে। পুরুষ কিংবা নারী যে কেউ এ রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। তবে স্তন ক্যান্সারে নারীদের আক্রান্তের হার সবচেয়ে বেশি। স¤প্রতি জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের এক গবেষণায় দেখা গেছে, স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত নারীদের ৫০ ভাগেরই বয়স ২৫ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে। আক্রান্তদের ৮৯ শতাংশই বিবাহিত। যাদের গড় বয়স ৪১ বছর।
স্তন ক্যান্সার সচেতনতা ফোরামের প্রধান সমন্বয়ক এবং জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের ক্যান্সার ইপিডেমিওলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হাবিবুল্লাহ তালুকদার রাসকিন গণমাধ্যমকে জানান, বাংলাদেশের নারীদের সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি স্তন ক্যান্সারে। প্রতি বছর এখানে প্রায় ১৫ হাজার নারী স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হন আর মারা যান সাত হাজারের বেশি। সে ক্ষেত্রে নারী ক্যান্সার রোগীদের মধ্যে এ আক্রান্তের হার ২৪ শতাংশ ও মৃত্যুর হার ১৭ শতাংশ।
যশোরের প্রেক্ষাপটে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ অন্যান্য বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতাল এবং ডায়াগনস্টিক সেন্টারে তথ্যানুসন্ধান এবং বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে বিভিন্ন সময় নানা পরীক্ষা নীরীক্ষার মাধ্যমে যশোরে যেসব রোগীদের স্তন ক্যানসার ধরা পড়ে তা অনেক ক্ষেত্রেই প্রাথমিক পর্যায় পার হয়ে যায়। গ্রামীণ নারীরা শুধু নয় শিক্ষিত এবং নানা পর্যায়ে প্রতিষ্ঠিত নারীদের মধ্যেও এটি নিয়ে উদাসীনতা রয়েছে। শুধুতাই নয় ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্র বাদে স্বপ্রণোদিত হয়ে স্তনের প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করানো রোগীর সংখ্যাও শূন্য।   
এ বিষয়ে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডাক্তার ফারহানা ইয়াসমিন জানান, শুধুমাত্র সচেতনতার মাধ্যমে এ রোগ প্রতিরোধ সম্ভব নয় তবে খুব দ্রুত তা সনাক্ত করা সম্ভব। প্রাথমিক অবস্থায় রোগটি শনাক্ত হলে উপযুক্ত চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা শতকরা ৯০ ভাগের বেশি। প্রথম অবস্থায় এ রোগ শনাক্ত হলে অল্প চিকিৎসায় বা ছোট অস্ত্রোপচারে রোগী সুস্থ হতে পারেন। সে ক্ষেত্রে স্তন পুরো ফেলে দিতে হয় না। তাই লাজ লজ্জা, সামাজিক নানা কুসংস্কার পায়ে মাড়িয়ে সঠিক সময়ে সঠিক চিকিৎসা নিতে হবে। রোগ লুকিয়ে বড় করে লাভ নেই বরং যত তাড়াতাড়ি ধরা পড়বে তত বেশি সুস্থ হবার সম্ভাবনা থাকবে। প্রতিটি নারীকে লজ্জা পরিহার করে রোগের বিষয়ে আপনজনদেরকে বলার সুযোগ দিতে হবে। অনেকেই লোকলজ্জার কারণে সমস্যার প্রকাশ না করে, চিকিৎসকের শরণাপন্ন না হয়ে চেপে রাখেন পরে তা ক্যান্সারে রূপ নেয়।  
তিনি আরো জানান, প্রাথমিক পর্যায়ে এ রোগ শনাক্ত করার সময় হচ্ছে, মেয়েদের মাসিকের পরের সাতদিন নিজে নিজেই স্তনে কোনো চাকা আছে কিনা তা দেখে নেয়া। এ ছাড়াও স্তনে নতুন এবং অস্বাভাবিক পিন্ড অনুভব করলে, পরবর্তী মাসিক পার হয়ে গেলেও পিন্ড না গেলে, পিন্ড আরও বড় এবং শক্ত হলে, স্তনবৃন্ত থেকে পরিস্কার, রক্ত যুক্ত কিংবা অন্য কোন রঙের পাতলা অথবা আঠালো তরল নিঃসরণ হলে, এর ত্বকে পরিবর্তন দেখা দিলে, স্তনের বোঁটা ভিতরের দিকে ঢুকে গেলে, হাতের নিচে অর্থাৎ বগলের কোথাও নির্দিষ্ট কোন কারণ ছাড়াই ফুলে উঠলে, স্তনের কোথাও লালচে ভাব কিংবা ব্যথা অনুভব করলে, স্তনের আকার  রঙ ত্বকের মসৃণতা কিংবা তাপমাত্রায় তারতম্য পরিলক্ষিত হলে, স্তনের ত্বকে লালচে আভা এবং কমলা লেবুর খোসার মত অমসৃণতা দেখা দিলে, স্তনবৃন্তে চুলকানি জ্বালা পোড়া খুস্কি অথবা ক্ষত কিংবা ঘা দেখা দিলে কালক্ষেপণ না করে বিশেষজ্ঞের পরামর্ষ নেয়া প্রয়োজন। মানসিক চাপ, বংশ বা জীন গত কারণ ছাড়া খাদ্যাভ্যাস, বয়স, ওজনাধিক্য, দীর্ঘদিন ধরে হরমোনের ওষুধ সেবনও স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায় বলে উল্লেখ করেন তিনি।
প্রসঙ্গত বাংলাদেশে ১৯টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত মোর্চা ‘বাংলাদেশ স্তন ক্যান্সার সচেতনতা ফোরাম’-এর উদ্যোগে ২০১৩ সাল থেকে দিবসটি উদযাপিত হয়ে আসছে। তা ছাড়া বিশ্বব্যাপি অক্টোবর মাসকে স্তন ক্যানসার সচেতনতা মাস হিসেবে নানা কর্মসূচি পালিত হয়।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft