দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
কেশবপুরে ইউএনওর সাহসিকতায় বেঁচে গেল একটি পরিবার
মোতাহার হোসাইন, কেশবপুর (যশোর) ব্যুরো :
Published : Tuesday, 14 November, 2017 at 12:00 AM
কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কবির হোসেনের সাহসিকতায় আগুন থেকে বেঁচে গেলেন দু’শিশুসহ এক গৃহবধূ। এ ছাড়া তিনি দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড থেকে রক্ষা পেয়েছে ওই ভবনের সাতটি পরিবার। রান্নার সময় গ্যাস সিলিন্ডার লিকেজের কারণে ওই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। সরেজমিনে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে শহরের আলিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষা পরিদর্শনে আসেন ভারপ্রাপ্ত ইউএনও কবির হোসেন। সাড়ে ১১ টার দিকে মাদ্রাসার পিছনে গোলাম মোস্তফা মন্টুর মালিকাধীন ভবনে এক গৃহবধূর চিৎকার শুনে তিনি দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছান। ওই ভবনে অগ্নিকান্ডে প্রচুর ধোঁয়া ও আগুন উপেক্ষা করে তিনি ভাড়াটিয়া সোহেল রানা শিমুলের ফ্ল্যাটে ঢুকে তার স্ত্রী শামীমা ইসলাম মুন্নি, তাদের মেয়ে মিমিশা (৬) ও ছেলে মাহিন (৩) কে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন। এরপর দ্রুত কেশবপুর বিদ্যুৎ অফিস ও মণিরামপুর ফায়ারসার্ভিসে খবর দেন ইউএনও। একইসাথে স্থানীয়দের সাথে নিয়ে মাদ্রাসার গেট থেকে বালি ও ওই ভবনের ট্যাংকের পানি দিয়ে আগুন নেভানোর কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েন। মণিরামপুর ফায়ারসার্ভিসের নয় সদস্যের টিমসহ অগ্নি নির্বাপক গাড়ি ঘটনাস্থলে  পৌঁছার আগেই তিনি আগুন নেভাতে সক্ষম হন। ততক্ষণে ওই বাসার আসবাবপত্রসহ লক্ষাধিক টাকার বিভিন্ন জিনিসপত্র পুড়ে ছাই হয়েছে বলে গৃহকত্রী জানান।
ইউএনও কবীর হোসেন বলেন, ওই ভবনে সাতটি পরিবারের প্রায় ৩৫ জন মানুষ বসবাস করে। নারী ও শিশুরা তাদের বাসাতেই ছিল। দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করায় সিলিন্ডার বিস্ফোরণ এবং বড় ধরনের ক্ষতি থেকে রক্ষা পেয়েছে তারা। নি¤œমানের গ্যাস সিলিন্ডারের কারণে এমন সমস্যা হতে পারে বলে ফায়ার সার্ভিসের টিমলিডার আজমল হোসেন জানান। খবর পেয়ে পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম মোড়ল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।





সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft