মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০১৮
সম্পাদকীয়
অম্ল-মধুর তবু চলে, কিন্তু অম্লীয়!
Published : Friday, 12 January, 2018 at 6:15 AM
রোহিঙ্গা সংকটে মিয়ানমারের সঙ্গে নতুন করে সম্পর্কের অবনতি হয়েছে বাংলাদেশের। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আজকের কথায় এমনটাই ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করতে বড় বড় দেশগুলোর প্রতি বাংলাদেশ সরকারের চাপ অব্যাহত রয়েছে যাতে তারা রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নেয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের আশ্রয়, খাদ্য ও চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা করেছেন। তবে তিনিও বলেছেন, রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানের দিকে সবাইকে নজর দিতে হবে এবং তাদেরকে তাদের মাতৃভূমিতে ফেরত পাঠাতে হবে। এই ইস্যুতে মিয়ানমারের সঙ্গে বাংলাদেশের দুটি সমঝোতা চুক্তি হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী, দুই মাসের মধ্যে রোহিঙ্গাদের আবার মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কথা। রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের নেপিডোতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী এবং মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দলের প্রধান অং সান সু চি’র বৈঠক শেষে সমঝোতা স্মারক সই হয়। এখন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কথায় বোঝা যাচ্ছে, মিয়ানমার স্পষ্টত চুক্তি লঙ্ঘন করছে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক ‘অম্ল’ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। তিনি বলেন: তবে আমরা বিশ্বাস করি, রোহিঙ্গারা নিজের দেশে ফিরে যেতে পারবে। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিআইআইএসএস) আয়োজিত ‘বিশ্ব পরিস্থিতির পরিবর্তন: বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতি’ শীর্ষক এক সেমিনারে বুধবার প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন: প্রতিবেশী মিয়ানমার পারস্পরিক সম্পর্ককে বিরক্তিকর জায়গায় নিয়ে গেছে। রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে রাজি হলে মিয়ানমারের সঙ্গে সম্পর্ক আগের অবস্থায় ফিরে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আজকের কথায় এই চুক্তি বাস্তবায়নে শংকা দেখা দিয়েছে। তবে কি রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে অনির্দিষ্টকালের জন্য থেকে যাবে? তাদের পেছনে যে সরকারের কোটি কোটি টাকা খরচ হচ্ছে এটা কী জাতীয় অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব ফেলবে না? তারপরও আমরা আশাবাদী হতে চাই, মিয়ানমার সরকার তাদের সঙ্গে স্বাক্ষরিত চুক্তির প্রতি সম্মান দেখিয়ে তা বাস্তবায়ন করবে, অবিলম্বে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গাদের সম্মানের সঙ্গে তাদের মাতৃভূমিতে ফিরিয়ে নেবে মিয়ানমার সরকার।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft