মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০১৮
জাতীয়
ইজতেমা ময়দানে লাখো মুসল্লির জুমার নামাজ আদায়
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 12 January, 2018 at 6:06 PM
ইজতেমা ময়দানে লাখো মুসল্লির জুমার নামাজ আদায়মাওলানা সাদকে ছাড়াই টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের প্রথম দিনে লাখো মুসল্লি একসঙ্গে জুমার নামাজ আদায় করেছেন।
শুক্রবার রাজধানীর কাকরাইল মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ জুবায়েরের ইমামতিতে ইজতেমা ময়দানে দেশের সর্ববৃহৎ জুমার নামাজে খুতবা পাঠ শুরু হয় দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে। নামাজ শুরু হয় ১টা ৪০ মিনিটে।
ইজতেমায় যোগদানকারী মুসল্লি ছাড়াও জুমার নামাজে অংশ নিতে ঢাকা-গাজীপুরসহ আশপাশের এলাকার লাখ লাখ মুসল্লি ইজতেমাস্থলে হাজির হন। দুপুর ১২টার দিকে ইজতেমার পুরো ময়দান পূর্ণ হয়ে যায়। মাঠে স্থান না পেয়ে মুসল্লিরা মহাসড়ক ও অলি-গলিসহ যে যেখানে পেরেছেন পাটি, চটের বস্তা ও খবরের কাগজ বিছিয়ে জুমার নামাজে শরিক হন।
ইজতেমা মাঠের জুমার নামাজে অংশ নেন মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ও গাজীপুর ২ আসনের সংসদ সদস্য জাহিদ হাসান রাসেল।
শুক্রবার বাদ ফজর থেকে শুরু হয় এবারের বিশ্ব ইজতেমা। বয়ান করছেন সৌদি আরব তাবলিগের মুরব্বি শেখ ওমর খতিব। বয়ান তরজমা করছেন বাংলাদেশের মো. আবদুল মতিন।
এদিকে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ইজতেমা ময়দানে আজিজুল হক (৬০) নামে এক মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি মাগুরার শালিখা উপজেলার হবিষপুর গ্রামে।
ইজতেমা সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে আজিজুল হক ২৯নং খিত্তায় পেটের ব্যথায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে দ্রুত টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
তাবলিগ জামাত আয়োজিত বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বে আজ মূলবয়ান মঞ্চ থেকে জ্যেষ্ঠ মুরুব্বীরা আগত মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ভাষায় আল্লাহ ও তার রাসূলের নির্দেশিত ইসলামী বিধানের ওপর দিক নির্দেশনামূলক গুরুত্বপূর্ণ বয়ান করছেন।
বিশ্ব ইজতেমার প্রথম ধাপে ২৮টি খিত্তা এবং দ্বিতীয় ধাপে ২৯টি খিত্তা স্থাপন করা হয়েছে। প্রথম পর্বে ১৬ জেলা এবং দ্বিতীয় পর্বে ১৬ জেলার মুসল্লিরা অংশ নেবে। এবারের ইজতেমায় বিশ্বের শতাধিক দেশের ১০ হাজারের বেশি মেহমান অংশগ্রহণ করেছেন বলে আশা করা হচ্ছে।
এর আগে এবারের ময়দানে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব আমির মাওলানা সাদ কান্ধলভি যাচ্ছেন না। তাকে ছাড়াই ইজতেমা শুরু হয়েছে। বিশ্ব ইজতেমায় মাওলানা সাদের যোগ দেওয়া-না দেওয়া নিয়ে যে অচল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল, তার অবসান করেছেন মাওলানা সাদ নিজেই। এবারের বিশ্ব ইজতেমায় মাওলানা সাদসহ দুই পক্ষের প্রধান দুই মুরব্বি যোগ দিচ্ছেন না।
তবে তাদের প্রতিনিধিরা ইজতেমায় অংশ নেবেন। টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমা সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে মাওলানা সাদ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে কাকরাইল মসজিদ ও ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
কনকনে শীত ও কুয়াশা উপেক্ষা করে গত বৃহস্পতিবার থেকেই বাস-ট্রাক, কার-পিকআপসহ বিভিন্ন যানবাহনে করে দলে দলে মুসল্লিরা টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমাস্থলে আসতে থাকেন। তারা কাঁধে-পিঠে প্রয়োজনীয় মালামাল নিয়ে ইজতেমাস্থলে এসে নিজ জেলার খিত্তায় অবস্থান নেন।
প্রথম দফায় যেসব জেলার মুসল্লি: এবারের বিশ্ব ইজতেমায় প্রথম দফায় ১৬টি জেলার মুসল্লিরা অংশগ্রহণ করবে। প্রথমবারে অংশ নেওয়া জেলা ও খিত্তা নম্বরগুলো হলো ঢাকা জেলার (খিত্তা নম্বর-১, ২, ৩, ৪, ৫, ৬, ৭, ৮, ১৬, ১৮, ২০, ২১), পঞ্চগড় (খিত্তা নম্বর-৯), নীলফামারী (খিত্তা নম্বর-১০), শেরপুর (খিত্তা নম্বর-১১), নারায়ণগঞ্জ (খিত্তা নম্বর-১২, ১৯), গাইবান্ধা (খিত্তা নম্বর-১৩), নাটোর (খিত্তা নম্বর-১৪), মাদারীপুর (খিত্তা নম্বর-১৫), নড়াইল (খিত্তা নম্বর-১৭), লক্ষ্মীপুর (খিত্তা নম্বর-২২, ২৩), ঝালকাঠি (খিত্তা নম্বর-২৪), ভোলা (খিত্তা নম্বর-২৫, ২৬), মাগুড়া (খিত্তা নম্বর-২৭) ও পটুয়াখালী (খিত্তা নম্বর-২৮) জেলার মুসল্লিরা অবস্থান করছে। মুসল্লিদের সুবিধার জন্য ময়দানের উত্তর দিক থেকে ক্রমানুসারে দক্ষিণ দিকে খিত্তার নম্বর বসানো হয়েছে।
এদিকে ইজতেমার নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নেয়া হয়েছে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আগামী ১৪ জানুয়ারি রবিবার আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে ইজতেমার প্রথম পর্ব। ইজতেমার সার্বিক কার্যক্রম মনিটরিং করতে গাজীপুর সিটি করপোরেশন, জেলা প্রশাসন, র‌্যাব, পুলিশ, আনসার ও ভিডিপির পাঁচটি কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft