বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০১৯
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
সচেতন হলি দূযযোগ মুকোবিলা সহজ
Published : Saturday, 4 May, 2019 at 6:57 AM
বৈশেক মাসের শেষ ভাগ চলচে। তার মদ্দি চলচে ঘূন্নিঝড় ফণী আতংক। রেডুয়া টিবি, পিপার পত্রিকা আর ফেসবুক জুইড়ে কেবল ফণী সুমাচার। মানুসরে সতর্ক কত্তি যাইয়ে মনে হচ্চে ভড়কো কইরে দেচ্চে এই সব কতাবাত্তার। তেরশ গাঙ আর সাগর কান্দায় আমাগের দেশ। সব সুমায় আমরা প্রাকিতিক ঝুনঝাটের ঝাকিতি থাকি। আমরা ইচ্চে কল্লিই এই সব দূযযোগ ঠেকাতি পারবো না কিন্তুক সচেতন হলি ক্ষেয়ক্ষেতি কুমাতি পারবো। এ জন্যি কোন বালা মুসিবত আসলে ভয়তে দোর বন্দ কইরে দিয়ে পলায় থাকলি বিপদতে বাচা যাবে না। এ সময়ে হাত গুটায় বইসে থাকলি বিপদ আরও বাড়ে। ঘূন্নিঝড়ের মতো পরিস্থিতিতি মাতা ঠান্ডা রাইকে কাজ কল্লি বড় ধরনের দূরঘটনা এড়ানো যায়। তাই সবাইরে জানতি হবে ঘূন্নিঝড় বা কোন দূযযোগে আমাগের কি করা দরকার। বিপদ আসলি ভাইঙ্গে না পইড়ে পেত্তমেই মাতা ঠান্ডা রাইকে বিপদের মুকোবিলা কত্তি হবে। বাড়ির মদ্দি কিম্বা আশপাশের বড় গাছের শুকোয় যাওয়া বা আধমরা ডাল কাইটে ফেলতি হবে। সেই সাতে সে সব গাছের গুড়ার মাটি সইরে গাছ নড়া দাতের মতো হইয়ে গেছে তা কাইটে ফেলতি হবে। ঝড় আসলি উড়োয় নিয়ে যাতি পারে ইরাম কোন জিনুস খুলা জাগায় থাকলি তা সরায় ফেলতি হবে। ঘরদোর মিরমতের দরকার হলি তা আগেত্তে সইর কইরে নিতি হবে। বিশেষ কইরে যাগের ঘরের টিনের চাল তাগের ঝড় বিস্টির মৌসুমির আগেই দূব্বল হলি মিরামত কইরে নিতি হবে। বাড়ি শুকনো খাওয়া যিরাম চিড়ে মুড়ি গুড় নারকেল খাওয়ার পানি এই সব গুছায় থুতি হবে। ঘূন্নিঝড়ে কারেনের তার ছিড়ে ছুইটে খ্যায় হইয়ে যাতি পারে সে কারনে আগেত্তে ম্যাচ লম্প হ্যারিকেন বা র্চাজার লাইট গুছায় থুতি হবে। একন এর সাথে বিপদ আসার আগেত্তে মুবালিই চার্জ ওটোয় রাকতি হবে। না হলি কারেন কয় দিন যদি না আসে তেবে কারো সাতে যুগাযোগ করা মুশকিল হতি পারে। কারেন শট খাওয়া ঝুকি থাকলি হাতের কাচাকাচি কাটের বোড রাকলি ভালো কারন কাটের বোডে কারেন পাচ করে না। যারা নিয়মিত ওষুদ পাতি খান তাগের ওষুদ কিম্বা আগাম কিচু জরুলী ওষুদ জমা থুলি ভালো হয়। হটাস যদি কাইটে কুইটে যায় কিম্বা ঘায় খাইয়ে ব্যাতা শুলো হয় তালি ডাক্তার ডাকার আগে পিরাথমিক চিকিসসে নিজেরাই করা যাতি পারে। ঝড়ের মদ্দি বাইরি বাজার ঘাটে চলাফিরা না করাই ভালো। বাতাস উটার ভাব দেকলি সগগলির নিজেগের বাড়ি ঘোরদোর অথবা নিরাপদ জাগায় আশ্রয় নিতি হবে। কাচের জানলা হলি তাতে বোড জাতীয় কিচু দিয়ে আবডাল কইরে রাকা ভালো। না হলি কাচ ভাইঙ্গে চুইরে আইসে মানসির ক্ষেতি হতি পারে। বাড়ির কারেনের ঝুকি পূন্ন বা ছিড়া, জুড়া দিয়া তার থাকলি আগেত্তে তা মিরামত কত্তি হবে। ককন কি ঘটতেচে সিডা ভালো কইরে খিয়াল কত্তি হবে। এ সুমায় গুজবে কান না দিয়াই উচিত। ঝড় কিম্বা প্রাকিতিক দূযযোগ ক্ষনে ক্ষনে রুপ পাল্টায় সে জন্যি বাসি খবরে কান না দিয়া যাবে না।  সে জন্যি যে কোন দূযযোগের ২৪ ঘন্টা আগের নিদ্দেশনা শুনতি হবে তাতে কি কওয়া হচ্চে। যা কলাম সবই জানা তার পরেও এট্টু মনে কইরে দিয়ার জন্যি লিকা।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft