শিরোনাম: কুষ্টিয়ায় আরও ৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত       ব্রাজিলে ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ২৯ হাজার করোনা শনাক্ত       যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে ১০৮১ মৃত্যু       রাজশাহী জেলা রেজিস্ট্রার করোনায় পজিটিভ       ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ মোকাবেলায় বাংলাদেশ কতটা প্রস্তুত?       ঝড়ে সুন্দরবনের চরে আটকে গেল পাথর বোঝাই জাহাজ       দেশের ১১ অঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা       সাধারণ ছুটি পুনরায় বাড়ছে !       ঝিনাইদহে বিক্রয় নিষিদ্ধ ঔষধ জব্দ, ব্যবসায়ীকে জরিমানা       বনমেরু রোগে আক্রান্ত রোজিনা বাচতে চায়      
ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবে সাতক্ষীরায় রাতভর বৃষ্টি, উত্তাল নদ-নদী
আশ্রয় কেন্দ্রে ২ লক্ষাধিক মানুষ
মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল, সাতক্ষীরা :
Published : Wednesday, 20 May, 2020 at 12:58 PM
ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবে সাতক্ষীরায় রাতভর বৃষ্টি, উত্তাল নদ-নদীঘুর্নিঝড় আম্ফানের প্রভাবে সাতক্ষীরার উপকূলীয় এলাকায় রাতভোর বৃষ্টি হয়েছে। উত্তাল রয়েছে এখানকার নদ-নদীগুলো। ইতিমধ্যে ২ লাখ ১৩ হাজার ৪০০ মানুষকে আশ্রয় কেন্দ্রে নেয়া হয়েছে। প্রায় ২৫ হাজার গবাদি পশুকে নিরাপদে আনা হয়েছে। প্রস্তুত রাখা হয়েছে ১০৩টি মেডিকেল টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ১২হাজার স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রয়েছে।
সাতক্ষীরা আবহাওয়া অফিস সুত্র জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় আম্ফান এখন সাতক্ষীরা উপকুল থেকে ৩৫০ কিলোমিটার দক্ষিন পশ্চিমে অবস্থান করছে। বর্তমানে সাতক্ষীরায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ৪১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। বর্তমানে আকাশ  মেঘলা রয়েছে।
ঘুর্নিঝড়টি আজ সন্ধ্যা নাগাদ সাতক্ষীরা উপকুল অতিক্রম করতে পারে। এসময় উপকুল অঞ্চলের নদ নদী গুলোতে ১০ থেকে ১৫ ফুট উচ্চতায় জলোচ্ছাস হতে পারে। ফলে বেড়িবাধ গুলি মারাতœক ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে উপকুলের বিস্তির্ণ এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশাংকা করা হচ্ছে।  
এদিকে, ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের বিষয়ে সতর্ক করে উপকূলে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বত্র মাইকিং করছে সিপিপি সদস্যরা। তোলা হয়েছে লাল ফ্লাগ। উপকূলীয় দ্বীপ ইউনিয়ন গাবুরা, পদ্মপুকুরসহ অন্যান্য ইউনিয়নের সাধারণ মানুষকে আশ্রয় কেন্দ্রে আনার কাজ করছেন প্রশাসনের পাশাপাশি পুলিশ, বিজিবি, নৌ বাহিনী, কোস্ট গার্ড ও ফায়ার সার্ভিস।
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল জানান, জেলার উপকুলীয় উপজেলা শ্যামনগর ও আশাশুনির লক্ষাধিক মানুষকে নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্রে নেয়া হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে পর্যাপ্ত মাস্ক হ্যন্ডস্যানিটাইজার, সাবান ও গামছা দেয়া হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় জেলা ও উপজেলা প্রশাসনসহ প্রত্যেক ইউনিয়নে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। দুর্গতদের জন্য ২৫০ মেট্রিক টন চাল ও ১২ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft